করোনা পরিস্থিতির পরে দুবাইয়ের ভিসা আরো সহজ হবে

করোনা মহামারির পর বাংলাদেশি শ্রমিকদের জন্য শ্রম ভিসা অনেকটা সহজ হবে বলে জানিয়েছেন সংযুক্ত আরব আমিরাতের চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স আবদুল্লাহ আলী আলহামৌদি। একই সঙ্গে দেশটিতে থাকা ভাস্কর্যগুলোকে শত বছরের ইতিহাস ও ঐতিহ্যের অংশ হিসেবে উল্লেখ করেন তিনি।

 

মঙ্গলবার (৮ ডিসেম্বর) সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা জানান।

 

আমিরাতের চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স আবদুল্লাহ আলী আলহামৌদি বলেন, দুই দেশের বিভিন্ন ইস্যুতে আলোচনার জন্য আমাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে, সেজন্য ধন্যবাদ জানাতে চাই। বাংলাদেশের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক অনেক ভালো। বাংলাদেশের মানুষ আমাদের অবকাঠামো উন্নয়নসহ ও বিভিন্ন উন্নয়নের অংশীদার। আমরা সেজন্য কৃতজ্ঞ। আমরা কাজের জন্য লোক খুঁজছি এবং আমাদের সম্পর্ক অন্য ক্ষেত্রেও ভালো হবে বলে আশা করছি।

 

করোনা পরবর্তী সময়ে কর্মীদের আমিরাতে যাওয়ার বাষয়টি সহজ হবে কিনা জানতে চাইলে আমিরাতের চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স বলেন, চলমান মহামারির মধ্যে যেসব কর্মীর স্থায়ী বসবাসের অনুমতি রয়েছে তারা টিকিট কেটে সরাসরি আরব আমিরাত চলে যাবেন। এর জন্য আলাদা কোনো অনুমতির প্রয়োজন হবে না। করোনা মহামারি নিয়ে গোটা বিশ্ব সংকটে। মহামারির পর বাংলাদেশি শ্রমিকদের জন্য শ্রম ভিসা অনেকটা সহজ হবে।

 

এ বিষয়ে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশের শ্রমিকরা আরব আমিরাতে স্বাধীনভাবে কাজ করছে। অনেক দেশে শ্রমিকরা করলেও আরব আমিরাতের মতো স্বাধীনতা অন্য কোথাও নেই। সংযুক্ত আরব আমিরাতে বাংলাদেশি শ্রমিকের ভিসা জটিলতা নিয়ে আমাদের মধ্যে আলোচনা হয়েছে। যে জটিলতাগুলো ছিল সেগুলো অনেকটাই নিরসন হয়েছে। যেগুলো এখনো আছে সেগুলো আগামীতে থাকবে না।

 

ভাস্কর্য বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সংযুক্ত আরব আমিরাতের চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স আবদুল্লাহ আলী আলহামৌদি বলেন, সংযুক্ত আরব আমিরাতেও শতবর্ষের পুরনো অসংখ্য ভাস্কর্য রয়েছে। কারণ এটি ইতিহাস ও সংস্কৃতির অংশ।

................... Social Sharing .................